নারায়ণগঞ্জবন্দর

ছাগল ছিনিয়ে নিতে বাসচালককে জিম্মি, গ্রেফতার ৩

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসচালককে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ২৭টি ছাগল ছিনিয়ে নেয়ার সময় ধাওয়া করে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে হাইওয়ে থানা পুলিশ।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) ভোরে উপজেলার লাঙ্গলবন্ধ এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতাররা হলো- রূপগঞ্জ উপজেলার ভাউলিয়া গ্রামের মো. আবু সাঈদের ছেলে মো. সুমন (৩২), মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাঁঠালচর এলাকার নুরুল হকের ছেলে মো. আলম (৩৫)। সে বর্তমান হিরাঝিল আতাহার আলীর বাড়ির ভাড়াটিয়া এবং কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের মো. আব্দুস ছাত্তারের ছেলে মো. রাসেল (৩০)।

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান জানান, টি এম পরিবহনের (ঢাকা-মেট্রো-ব-১৫-৭৪৭৬) যাত্রীবাহী বাস বক্সে ২৭টি ছাগল নিয়ে রংপুর থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। বুধবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে যাত্রীবাহী বাসটি কাঁচপুর বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছলে এক নারী ও চার পুরুষ যাত্রী চট্টগ্রাম যাওয়ার কথা বলে বাসে ওঠে। পরে বাসটি লাঙ্গলববন্ধ পৌঁছলে চালক ও সুপারভাইজারকে পিস্তল ঠেকিয়ে বক্সে থাকা ২৭টি ছাগল নামাতে থাকে। এ সময় কাঁচপুর হাইওয়ে থানার টহল পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাত দল ১০টি ছাগল নিয়ে দ্রুত গ্রামের দিকে পালাতে থাকে। এ সময় এএসআই রুবেল শেখ ডাকাতদের ধাওয়া করে সাতটি ছাগল উদ্ধার করে। ডাকাত দল বাকি তিনটি ছাগল নিয়ে পালিয়ে যায়। ওই মুহূর্তে বন্দর থানাধীন কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের টহল ডিউটি পুলিশকে অবগত করলে এসআই আবুল কাশেম ধাওয়া করে হালুয়াপাড়া গ্রামের ভেতর থেকে তিনজনকে আটক এবং বাকি তিনটি ছাগল উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় টিএম পরিবহনের সুপারভাইজার বাসেদ মিয়া বাদী হয়ে বন্দর থানায় মামলা করেন।

Related Articles

40 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button